সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক নিকট খোলা চিঠি দিয়েছেন সৈয়দ শিব্বির আহমেদ 


সৈয়দ শিব্বির আহমেদ



খোলা চিঠি 
মাননীয় জেলা প্রশাসক 
সুনামগঞ্জ জেলা।

প্রসঙ্গঃ বুধরাইল উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রের চিকিৎসা সেবা।

সুনামগঞ্জ জেলা জগন্নাথপুর উপজেলায় ৭নং সৈয়দপুর শাহারপাড়া ইউনিয়নে বুধরাইল গ্রামে অবস্থিত। বুধরাইল উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রটি বৃটিশ আমলে আমাদের গ্রামের সুনামধন্য ব্যক্তিত্ব মতুরনাথ দত্ত প্রতিষ্ঠা করেন। তখন থেকে অত্র এলাকার জনসাধারণ স্বাস্থ্য সেবা নেন।

বর্তমানে কোটি টাকার উপস্বাস্থ্য কেন্দ্র আছে, নেই কোন সেবা, নেই কোন নার্স, নেই কোন ফার্মেসী। কিছু স্বার্থলোভী মানুষের জন্য চিকিৎসা সেবা থেকে বঞ্চিত কয়েকটি এলাকার সহজ সরল ও সাধারণ মানুষ। 
মানের দিক চিন্তা করে ২৫ নং সার্কেলের যুব-সমাজ ও মুরুব্বিদের নিয়ে কয়েকটি বৈঠক করা হয় এবং সফলও হয়। বৈঠকে পুরাতন মেয়াদ উত্তীর্ণ কমেটি বিলুপ্ত ঘোষণা করে, সবাই একমত পোষণ করেন যে, আপনার মাধ্যমে নতুন কমেটি করার জন্য, ইনশাহআল্লাহ শীঘ্রই তা বাস্তাবায়ন করা হবে। নতুন দায়িত্বশীলরা আসবেন।
আশাকরি জেলা প্রশাসকের নির্দেশনায় তা বাস্তাবায়ন হবে।
আমাদের ২৫ নং সার্কেলের সহজ সরল গরীব আসহায় মানুষের হয়ে- ১০ দফা দাবি নিম্নে তুলে ধরলাম।

১/ হাসপাতালে ২৪ ঘন্টা জরুরী বিভাগের ব্যাবস্থা।
২/ ইমারজেন্সি ডেলিভারি রোগীদের জন্য দক্ষ চিকিৎসক দেওয়া।
৩/ ফার্মেসী ও অষুধ থাকা অবশ্যক।
৪/ নতুন নার্স নিয়োগ। 
৫/ কমপক্ষে ৫ শষ্য বিশিষ্ট জরুরী ওয়ার্ড।
৬/ হাসপাতালের সামনে মেইন রোড পর্যন্ত পাকা রাস্তা বাস্তবায়ন। 
৭/ হাসপাতালের মালামাল হেফাজতের জন্য দক্ষ নাইট গার্ড নিয়োগ দেওয়া।
৮/ হাসপাতালের সামনে মেইন রোড পর্যন্ত লাইটিং ব্যাবস্থা।
৯/ হাসপাতালের জন্য নতুন ডিজিটাল সাইবোর্ড।
১০/ ২ বছর মেয়াদের কমেটি দেওয়া।

জেলা প্রশাসক ও উপস্বাস্থ্য কেন্দ্রের দায়িত্বশীলদের নিকট অকুল আবেদন আমার। এলাকার জনসাধারনের কথা চিন্তা করে এ গুলো বাস্তাবায়ন করার জন্য আপনার প্রতি বিনীতভাবে অনুরোধ করতেছি।

সৈয়দ শিব্বির আহমেদ 
অত্র এলাকার সাধারণ নাগরিক।
বুধরাইল, জগন্নাথপুর, সুনামগঞ্জ।

0 Comments