জগন্নাথপুরে আশ্রয়ন প্রকল্পের ১৯৮টি দরিদ্র পরিবারের মাঝে নতুন ঘরের চাবি হস্তান্তর করলেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান

স্টাফ রিপোর্টার : 
আশ্রয়নের অধিকার, শেখ হাসিনার অঙ্গিকার “আশ্রয়ন প্রকল্পের অধীনে যার জমি আছে ঘর নেই তার নিজ জমিতে গৃহ নির্মাণ” প্রকল্পের উপকারভোগীদের মধ্যে জগন্নাথপুর উপজেলার ১টি পৌরসভা ও ৮টি ইউনিয়নের ১৯৮টি দরিদ্র পরিবারের মাঝে নির্মিত নতুন ঘরের চাবি হস্তান্তর করেছেন পরিকল্পনা মন্ত্রী আলহাজ্ব এম এ মান্নান। এ উপলক্ষ্যে আজ শনিবার সকাল ১১টায় উপজেলা প্রশাসন ও দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা বিভাগের যৌথ আয়োজনে প্রশাসনের হল রুমে আয়োজিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে পরিকল্পনা মন্ত্রী আলহাজ্ব এম এ মান্নান বলেছেন বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের দরিদ্র জনগোষ্টির কল্যানে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে উন্নয়ন কাজ পরিচালিত হয়ে আসছে। তিনি বলেন জগন্নাথপুর সহ দেশের হাওর বেষ্টিত এলাকায় বিশুদ্ধ খাবার পানি, স্যানেটারী লেট্রিন স্থাপনের জন্য ইতোমধ্যে ৫শ কোটি টাকার প্রকল্প প্রস্তুত করা হয়েছে। শীঘ্রই তা বাস্তবায়ন করা হবে। এছাড়াও ৪হাজার কোটি টাকা ব্যয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবং ১২শ কোটি টাকা ব্যায়ে মেডিকেল কলেজ দক্ষিন সুনামগঞ্জ এলাকায় স্থাপন করা হবে। ইতোমধ্যে চলতি বছর থেকে মেডিকেল কলেজের ভর্তি কার্যক্রম শুরু করার প্রস্তুতি নেয়া হয়েছে। মন্ত্রী আরো বলেন আশ্রয়ন প্রকল্পের মাধ্যমে আরো বেশি গৃহ নির্মান করে দরিদ্র পরিবারের মধ্যে উপহার দেয়া হবে। এক্ষেত্রে প্রশাসনিক কর্মকর্তা, ক্ষমতাসীন দলের রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও জনপ্রতিনিধিদের সমন্বয়ে সঠিক পরিবারের তথ্য যাচাই পূর্বক ঘর প্রদানের আহবান জানান। মন্ত্রী জগন্নাথপুরে আধুনিক মসজিদ, হাসপাতাল, কৃষি ইনষ্টিটিউট, টিডিসি, ম্যাটস ডিপ্লোমা ইনস্টিটিউট স্থাপনের প্রতিশ্রুতি ব্যক্ত করে বলেন পর্যায়ক্রমে জগন্নাথপুরের সকল উন্নয়ন কার্যক্রম বাস্তবায়ন করা হবে।
মন্ত্রী জনসাধারনের অকৃত্রিম ভালোবাসায় সিক্ত হয়ে বলেন জগন্নাথপুর উপজেলাবাসী আমার হৃদয়ের মনিকোঠায় স্থান করে নিয়েছেন। তিনি সকলকে আন্তরিক অভিনন্দন জানিয়ে বলেন দেশের উন্নয়নের অগ্রযাত্রায় বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ুর জন্য সকলের নিকট দোয়া কামনা করেন। অনুষ্টানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি জগন্নাথপুর সরকারি ডিগ্রি কলেজের সাবেক সদস্য সিদ্দিক আহমদ। উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহ্ফুজুল আলম মাসুমের সভাপতিত্বে ও উপজেলা শিক্ষা অফিসার জয়নাল আবেদীনের পরিচালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আকমল হোসেন, সাধারন সম্পাদক রেজাউল করিম রিজু, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান বিজন কুমার দেব প্রমূখ। শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন উপজেলা কোর্ট জামে মসজিদের ইমাম মাওলানা নিজাম উদ্দিন জালালী। গীতা পাঠ করেন ছিক্কা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রূপক কান্তি দে। অনুষ্টানে অন্যদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক হারুন অর রশীদ, সুনামগঞ্জের নির্বাহী প্রকৌশলী ইকবাল হোসেন, সহকারী পুলিশ সুপার জগন্নাথপুর সার্কেল মাহমুদুল হাসান চৌধুরী, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা: মধু সুধর ধর, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা শওকত ওসমান মজুমদার, উপজেলা প্রকৌশলী গোলাম সারোয়ার, জগন্নাথপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা (পিআইও) মো: শাহাদত হোসেন ভুঁইয়া, সহকারী প্রকৌশলী পিআইও সাইফুল ইসলাম, জনস্বাস্থ্য উপ-সহকারী প্রকৌশলী আব্দুর রব সরকার, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আব্দুল কাইয়ুম মশাহিদ, সহ-সভাপতি পাটলী ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান সিরাজুল হক, যুগ্ম সম্পাদক লুৎফুর রহমান, জগন্নাথপুর পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান মিজানুর রশীদ ভুইয়া, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জয়দ্বীপ সূত্রধর বীরেন্দ্র, প্রচার সম্পাদক হাজি আব্দুল জব্বার, জগন্নাথপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র শফিকুল হক শফিক, জগন্নাথপুর পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ডা: আব্দুল আহাদ, সাধারন সম্পাদক ইকবাল হোসেন ভুইয়া, সাংস্কৃতিক সম্পাদক শুকুর আলী ভুইয়া, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক মো: আব্দুল হাই, উপজেলা যুবলীগের সভাপতি কামাল উদ্দিন, যুগ্ম সম্পাদক এনামুল হক এনাম, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি সাফরোজ ইসলাম। এদিকে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান সকাল ১০টায় গাড়ি যোগে জগন্নাথপুর উপজেলা সীমান্তে পৌছলে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহ্ফুজুল আলম মাসুম ও থানার অফিসার ইনচার্জ ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী মন্ত্রীকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। পরে জগন্নাথপুর থানার প্যারেড মাঠে গার্ড অব অনার শেষে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নানকে জগন্নাথপুর থানার নবাগত অফিসার ইনচার্জ ইখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। এসময় পুলিশের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা ও থানার কর্মকর্তা এবং পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

1 Comments